পাথরঘাটায় তুবা হত্যা মামলায় মা-ছেলে কারাগারে

নভেম্বর ০৩ ২০২২, ১৭:৪৮

নিজস্ব প্রতিবেদক, বরিশাল: বরগুনার পাথরঘাটায় তুইবা তুবা (১৮) হত্যা মামলায় প্রধান আসামি সজিব (২০) ও তার মা মোসা: মাজেদা বেগমকে (৪০) কারাগারে পাঠানোর নির্দেশ দিয়েছে আদালত।

বৃহস্পতিবার পাথরঘাটা সিনিয়র জুডিসিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট আদালতে হাজির হলে বিচারক প্রনব কুমার তাদের জেল হাজতে পাঠানোর নির্দেশ দেন। তুবা পাথরঘাটা পৌরসভার ৯ নম্বর ওয়ার্ডের খাদ্য গুদামের পশ্চিম পাশের আজাদ হোসেন সেন্টুর ছোট মেয়ে।

অভিযুক্ত সজিব পাথরঘাটা উপজেলা কালমেঘা ইউনিয়নের লাকুরতলা এলাকার আলমগীর হোসেনের ছেলে এবং মোসা: মাজেদা বেগম আলমগীর হোসেনের স্ত্রী।

মামলা সূত্রে জানা গেছে, গত বছরের ১৯ অক্টোবর তুবাকে মাজেদা বেগম তার বাড়িতে ডেকে নিয়ে সজিবের সাথে কথা বলায় অকথ্য ভাষায় গালমন্দ করেন এবং চুল ধরে মারধর করেন।

এর পরের দিন আবারো তুবাদের বাড়ির উঠানে এসে সবার সামনে অকথ্য ভাষায় গালমন্দ করেন। এ সময় সাজেদা বেগম কটু ভাষায় বলেন, ‘তুই তোর বাবার সাথে গিয়ে ঘুমা।

তা না পারলে গলায় দড়ি দিয়ে মরিস না কেন।’ এমন কথা শুনে লজ্জা ও ঘৃণায় সবার অজান্তে ঘরের আড়ার সাথে ওড়না গলায় পেঁচিয়ে তুবা আত্মহত্যা করেন।

এঘটনার পর ২৫ অক্টোবর পাথরঘাটা সিনিয়র জুডিসিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট আদালতে তুবার মা নাজমা বেগম সজিব, মাজেদা বেগম ও আলমগীর হোসেনের বিরুদ্ধে হত্যা মামলা করেন।

মামলার বাদী পক্ষের আইনজীবী অ্যাডভোকেট মো: রফিকুল ইসলাম মল্লিক জানান, আসামিদের বিরুদ্ধে পুলিশ বুরো অব ইনভেস্টিগেশনের (পিবিআই) প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, আসামিপক্ষের প্ররোচনায় তুবা আত্মহত্যা করেছে।

মামলায় দীর্ঘদিন সমন জারি করলে আসামিপক্ষ আদালতে জামিন আবেদন করেন।আদালত তাদের জামিন না মঞ্জুর না করে জেল হাজতে পাঠান।

সংবাদটি শেয়ার করুন....

আমাদের ফেসবুক পাতা

আজকের আবহাওয়া

পুরাতন সংবাদ খুঁজুন

সোম মঙ্গল বুধ বৃহ শুক্র শনি রবি
 
১০
১১১২১৩১৪১৫১৬১৭
১৮১৯২০২১২২২৩২৪
২৫২৬২৭২৮২৯৩০৩১

এক্সক্লুসিভ আরও