উদ্বোধনের অপেক্ষায় রাণীগঞ্জ সেতু

নভেম্বর ০২ ২০২২, ০৯:৪৮

অনলাইন ডেস্ক :: সুনামগঞ্জের জগন্নাথপুর উপজেলার রাণীগঞ্জ সেতু নির্মাণের মধ্য দিয়ে খুলতে যাচ্ছে দক্ষিণের দুয়ার। নির্মাণকাজ শেষে প্রধানমন্ত্রীর উদ্বোধনের অপেক্ষায় রয়েছে ১৫৫ কোটি টাকা ব্যয়ে নির্মিত সেতুটি। উদ্বোধনের পর পরই সুনামগঞ্জ থেকে সরাসরি হবিগঞ্জ হয়ে ঢাকার সঙ্গে যোগাযোগের মাধ্যমে সৃষ্টি হবে এক নতুন অধ্যায়।

জানা গেছে, কুশিয়ারা নদীর ওপর ২০১৭ সালে নির্মাণকাজ শুরু হওয়া সিলেট বিভাগের সবচেয়ে বড় রাণীগঞ্জ সেতু আগামী ৭ নভেম্বর ভিডিও কনফারেন্সের মাধ্যমে উদ্বোধন করবেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। এর মধ্য দিয়ে স্বপ্ন পূরণ হবে সুনামগঞ্জের ২৫ লাখ মানুষের। উদ্বোধনের মাধ্যমে রাজধানী ঢাকার সঙ্গে সুনামগঞ্জের দূরত্ব কমবে ৫৫ কিলোমিটার। সাশ্রয় হবে প্রায় দুই ঘণ্টার বেশি সময়। দূর হবে দীর্ঘ দিনের ফেরির ভোগান্তি। সহজ হবে পণ্য পরিবহন। হাওর জেলা সুনামগঞ্জে উৎপাদিত মাছ ও ফসল দ্রুত কম খরচে পৌঁছানো যাবে ঢাকাসহ দেশের অন্যান্য জায়গায়। সড়ক যোগাযোগের পাশাপাশি উন্নত হবে সুনামগঞ্জের অর্থনীতি।

স্থানীয়রা বলছেন, তাদের দীর্ঘ দিনের দাবি পূরণ হতে যাচ্ছে। এই সেতুর মাধ্যমে তাদের অর্থ, সময় বাঁচবে। আগে ফেরির জন্য ঘণ্টার পর ঘণ্টা অপেক্ষা করতে হতো। শিক্ষার্থীরা ঠিক সময়ে স্কুল-কলেজে পৌঁছাতে পারত না। রোগীকে হাসপাতালে নিতে ভোগান্তি পোহাতে হতো। এই সেতুর মাধ্যমে পুরোপুরি ভোগান্তি মুক্ত হবে তারা। পাশাপাশি রাজধানী যেতে এখন আর সিলেট ঘুরে যেতে হবে না। হবিগঞ্জ হয়ে সরাসরি ঢাকা পৌঁছাতে পারবে। রাণীগঞ্জ দিয়েই চলবে সুনামগঞ্জ থেকে রাজধানী ঢাকাসহ দেশের বিভিন্ন অঞ্চলের যোগাযোগ রক্ষাকারী গণ ও পণ্য পরিবহন।

স্থানীয় বয়োজ্যেষ্ঠ মাসুদ আলম বলেন, জন্মের আগে থেকে ফেরি দিয়ে চলাচল করে আসছি। শেষ বয়সে এসে সেতু দেখে যেতে পারছি। এটা আমাদের জন্য সৌভাগ্য। এখান থেকেই সরাসরি ঢাকা যেতে পারব। আমাদের দীর্ঘ দিনের ভোগান্তি কমবে।

শিক্ষার্থী আফরিনা বলেন, সেতু হওয়ায় সবচেয়ে লাভ হয়েছে আমাদের। সঠিক সময়ে স্কুল-কলেজে যেতে পারব। তাছাড়া টাকাও খরচ কম হবে।

আশিক মাহমুদ বলেন, আমাদের কেউ অসুস্থ হলে ফেরির জন্য অপেক্ষা করতে হতো। সেই ফেরি ভোগান্তি শেষ হওয়ার পথে। রোগী নিয়ে দ্রুত হাসপাতালে যেতে পারব।

তবে উদ্বোধন হলেও সেতুর পুরোপুরি সুফল এখনই ভোগ করা যাবে না। গলার কাটা হয়ে দাঁড়িয়েছে সুনামগঞ্জ থেকে রাণীগঞ্জ সড়কের দুটি বেইলি সেতু। সংকচিত হওয়ায় সেতু দুটি দূরপাল্লার যানবাহন চলাচলের অনুপযোগী। এছাড়া অপ্রশস্ত সুনামগঞ্জ-জগন্নাথপুর আঞ্চলিক সড়কে দূরপাল্লার যানবাহন চলাচল শুরু হলে এই সড়ক হয়ে উঠবে দুর্ঘটনাপ্রবণ অন্যতম একটি এলাকা।

সড়ক ও জনপথ বিভাগের নির্বাহী প্রকৌশলী আশরাফুল ইসলাম প্রামানিক বলেন, আগামী ৭ নভেম্বর প্রধানমন্ত্রী সারা দেশের ১০০টি সেতু উদ্বোধন করবেন। এর মধ্যে রাণীগঞ্জ সেতুসহ সুনামগঞ্জের ১৭টি সেতু উদ্বোধন হবে। এতে সুনামগঞ্জের সঙ্গে ঢাকার দূরত্ব ৫৫ কিলোমিটার কমবে। সুনামগঞ্জ থেকে রাণীগঞ্জ সড়কে যে দুটি সরু বেইলি সেতু রয়েছে সেগুলো ভেঙে নির্মাণ করার জন্য প্রক্রিয়া চলমান আছে। যে কোনো দিন কার্যাদেশ আসতে পারে।

আমার বরিশাল/ আরএইচ

সংবাদটি শেয়ার করুন....

আমাদের ফেসবুক পাতা

আজকের আবহাওয়া

পুরাতন সংবাদ খুঁজুন

সোম মঙ্গল বুধ বৃহ শুক্র শনি রবি
 
১০১১১২
১৩১৪১৫১৬১৭১৮১৯
২০২১২২২৩২৪২৫২৬
২৭২৮২৯৩০৩১  

এক্সক্লুসিভ আরও