বরিশালে ‘মাংসের দোকানের কর্মচারী’র কুকুর জবাই নিয়ে তুলকালাম

ফেব্রুয়ারি ০৪ ২০২৪, ১৯:৪১

নিজস্ব প্রতিবেদক, বরিশাল: বরিশাল নগরীর বটতলা বাজারে ‘কসাইয়ের দোকানের কর্মচারী’র বিরুদ্ধে কুকুর জবাই করার অভিযোগ উঠেছে। রোববার দুপুর ১২টায় বাজারে থাকা একটি কুকুর ধরে জবাই করা হয় বলে অভিযোগ করেন প্রাণী অধিকার রক্ষায় স্বেচ্ছাসেবী সংগঠন অ্যানিমেল ওয়েলফেয়ার অব বরিশালের সমন্বয়ক তুবা নাহার।

তিনি বলেন, “বটতলা বাজারের মাংস বিক্রির দোকানের কর্মচারী রায়হান মোল্লা একটি কুকুর জবাই করেন। এ সময় কুকুরটি ছুটে গিয়ে বটতলা এলাকার হালিমা খাতুন বালিকা মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের বিপরীতে একটি গলিতে গিয়ে আশ্রয় নেয়। পরে তাকে স্থানীয়রা মিলে চিকিৎসা দিলেও আর বাঁচানো যায়নি।”

ঘটনার পর থানায় গিয়ে পুলিশকে অবহিত করা হয়েছে। রায়হান এলাকা ছেড়ে পালিয়ে গেছেন। তবে স্থানীয়রা জানায়, রায়হান কোনো দোকানের স্থায়ী কর্মচারী নন। তিনি একেক সময় একেক দোকানে কাজ করেন। পরিবারের সদস্যদের অনুদানে নগরীর বেওয়ারিশ আড়াইশ কুকুরকে প্রতিদিন খাবার দেওয়া হয় জানিয়ে অ্যানিমেল ওয়েলফেয়ার অব বরিশালের ডা. তাবাসসুম বলেন, “ধারণা করছি, মাংস বিক্রির জন্যই কুকুরটিকে জবাই করা হয়েছে।” বিকালে তিনি জানান, রায়হানকে আসামি করে মামলার করার জন্য তিনি থানায় রয়েছেন।

বরিশাল মহানগর পুলিশের আলেকান্দা পুলিশ ফাঁড়ির এএসআই সাবু বিন ইসলাম বলেন, রায়হানকে আটক করতে বাসায় গেলেও তাকে পাওয়া যায়নি। রায়হান বটতলা এলাকার দিলবাগ গলির বাসিন্দা। বটতলা বাজারের মাংস বিক্রেতা সাইদ বলেন, “রায়হান বাজারের কোনো দোকানের কর্মচারী না। মানসিক ভারসাম্যহীন রায়হান বিভিন্ন সময় পশু-পাখি জবাই করে। আজ বাজারে এসে একটি কুকুর জবাই করেছে। ঠিকমতো জবাই না করায় কুকুরটি পালিয়ে যায়।”

সাইদ বলেন, “রায়হান কুকুর মাংস কোথায় দেয় কি-না আমরা জানি না।” বিষয়টি তদন্ত করে প্রশাসনকে ব্যবস্থা নেওয়ার আহ্বান জানিয়ে তিনি বলেন, এর সঙ্গে বাজারের কোনো ব্যবসায়ী জড়িত থাকলে তার বিরুদ্ধেও ব্যবস্থা নেওয়া হোক। ঘটনার মূল রহস্য উদ্ধারসহ জড়িত রায়হানের শাস্তি দাবি করেন তিনি।

সংবাদটি শেয়ার করুন....

আমাদের ফেসবুক পাতা

আজকের আবহাওয়া

পুরাতন সংবাদ খুঁজুন

সোম মঙ্গল বুধ বৃহ শুক্র শনি রবি
 
১০১১
১২১৩১৪১৫১৬১৭১৮
১৯২০২১২২২৩২৪২৫
২৬২৭২৮২৯  

এক্সক্লুসিভ আরও