‘দক্ষিণাঞ্চলে জঙ্গিবাদের বীজ অঙ্কুরেই নির্মূল করা হবে’

নভেম্বর ০২ ২০২২, ০০:৩৬

নিজস্ব প্রতিবেদক॥ দক্ষিণাঞ্চল থেকে জঙ্গিবাদের বীজ অঙ্কুরেই নিমূর্ল করার ঘোষণা দিয়েছেন র‌্যাব-৮ এর অধিনায়ক লেফটেন্যান্ট কর্নেল মাহমুদুল হাসান। তিনি বলেন, ১১টি জেলা জঙ্গিবাদমুক্ত রাখতে র‌্যাব বাড়তি গুরুত্ব দিয়ে কাজ করছে। আইসোলেটেড কয়েকটি চরাঞ্চলে কঠোর নজরদারি বাড়ানো হয়েছে।

মঙ্গলবার (১ নভেম্বর) দুপুরে র‌্যাব-৮ এর সদর দপ্তরে মতবাদকে এসব কথা বলেন লেফটেন্যান্ট কর্নেল মাহমুদুল হাসান।

তিনি আরও বলেন, র‌্যাব-৮ প্রতিষ্ঠালগ্ন থেকেই দাপ্তরিক কর্মকাণ্ডের অংশ হিসেবে জঙ্গিবাদ নিমূর্লে অগ্রণী ভূমিকা পালন করে আসছে। জঙ্গিবাদ নিমূর্লে আমাদের কার্যক্রম সব সময় চলমান রয়েছে।

দুটি উপায়ে এই কার্যক্রম পরিচালনা করা হয় উল্লেখ করে এই র‌্যাব কর্মকর্তা বলেন, জঙ্গিবাদ নিরোধে কিছু কার্যক্রম দৃশ্যমান হয়। আর কিছু কার্যক্রম গোয়েন্দা নজরদারির মাধ্যমে আমরা সম্পন্ন করি।

তিনি বলেন, জঙ্গিবাদ বিষয়টি অনেকটা গাছের মতো। বীজ থেকে অঙ্কুর হয়, সেটি বড় হয়, শাখা-প্রশাখা বাড়ে। তারপর তারা দৃশ্যত আক্রমণ করে। তবে আমরা সবসময়ে চেষ্টা করি জঙ্গিবাদ বীজ অঙ্কুর থেকেই নির্মূল করার। যারা বিভিন্ন রকমের অপপ্রচেষ্টায় অন্যদেরকে জঙ্গি মতবাদে নেওয়ার চেষ্টা বা উদ্যোগ গ্রহণ করে সেখান থেকেই আমরা প্রতিহত করার জন্য কাজ করছি। আমরা সবসময়ে চেষ্টা করি এই খারাপ পথে যেন কেউ না জড়িয়ে যায়।

মাহমুদুল হাসান বলেন, বিভিন্ন এলাকার যেসমস্ত স্থান আইসোলেটেড বা নির্জন—যেখানে সাধারণ জনগণের যাতায়াত তুলনামূলক কম—জঙ্গিবাদে বিশ্বাসীরা এই সমস্ত জায়গা বেছে নেয়। র‌্যাব-৮ এর দায়িত্বপূর্ণ এলাকার মধ্যে ভোলার কয়েকটি চর এবং উপকূলের আইসোলেটেড কিছু স্থান রয়েছে। আমরা কিন্তু সবসময়ে এই সমস্ত চরাঞ্চল নজরদারিতে রাখছি। যেন এসব চরাঞ্চলে এমন তৎপরতা না চালাতে পারে। একই সঙ্গে আমরা চেষ্টা করছি জঙ্গিবাদের মদদদাতাদের শনাক্ত করতে, যাতে করে তাদেরকে আইনের আওতায় নিয়ে আসতে পারি। যেন তারা অন্য কাউকে এই পথে আকৃষ্ট করতে না পারে।

তিনি বলেন, পার্বত্য চট্টগ্রামের বিশাল এলাকায় র‌্যাব বড় ধরনের অভিযান পরিচালনা করছে। অভিযানে জঙ্গিবাদে বিশ্বাসীদের গ্রেপ্তার করতে সক্ষম হয়েছে। সার্বিকভাবে এখন পর্যন্ত আমাদের দায়িত্বপূর্ণ এলাকায় জঙ্গিবাদে বিশ্বাসীদের বিরুদ্ধে তৎপরতা চলমান রয়েছে। আমি আশা করছি র‌্যাব-৮ এর দায়িত্বপূর্ণ এলাকাকে জঙ্গিবাদ থেকে মুক্ত রাখতে পারব।

বরিশাল, পটুয়াখালী, পিরোজপুর, বরগুনা, ঝালকাঠি, ভোলা, ফরিদপুর, রাজবাড়ী, মাদারীপুর, গোপালগঞ্জ এবং শরীয়তপুর এই ১১টি জেলায় র‌্যাব-৮ এর কার্যক্রম পরিচালনা করা হয়।

প্রসঙ্গত, দেশের ১৯ জেলা থেকে হিজরতের নামে নিরুদ্দেশ হওয়া ৫৫ তরুণের খোঁজে পার্বত্য অঞ্চলে অভিযান শুরু করেছে র‌্যাব। অভিযানে এখন পর্যন্ত বেশ কয়েকজনকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে। গ্রেপ্তারকৃতদের মধ্যে কয়েকজন বরিশাল বিভাগের পটুয়াখালী ও ভোলায় প্রশিক্ষণ নেয় বলে র‌্যাব সদর দপ্তর গত ৭ অক্টোবর গণমাধ্যমকে জানায়। জামাতুল আনসার ফিল হিন্দাল শারক্বীয়া নামে জঙ্গি সংগঠন তাদের কুকি-চিন ন্যাশনাল ফ্রন্ট (কেএনএফ) নামে একটি সশস্ত্র গোষ্ঠীর কাছে প্রশিক্ষণ দেওয়াচ্ছিল। জামাতুল আনসার ফিল হিন্দাল শারক্বীয়া সশস্ত্র সংগ্রামের জন্য ‘জঙ্গি মঞ্চ’ গঠনে কাজ করছে।

সংবাদটি শেয়ার করুন....

আমাদের ফেসবুক পাতা

আজকের আবহাওয়া

পুরাতন সংবাদ খুঁজুন

সোম মঙ্গল বুধ বৃহ শুক্র শনি রবি
১০১১১২১৩১৪
১৫১৬১৭১৮১৯২০২১
২২২৩২৪২৫২৬২৭২৮
২৯৩০  

এক্সক্লুসিভ আরও